২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার

ফ্রিজে মুরগির মাংস কতদিন রেখে খাওয়া স্বাস্থ্যসম্মত?

আপডেট: নভেম্বর ২৬, ২০২৩

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

প্রতিদিন কমবেশি সবার পাতেই মুরগির মাংসের পদ থাকে। বিশেষ করে স্বাস্থ্য সচেতনরা লাল মাংসের পরিবর্তে মুরগির মাংস খেতেই বেশি পছন্দ করেন।

আর মুরগির মাংস সংরক্ষণের সবচেয়ে জনপ্রিয় উপায় হলো ফ্রিজে রেখে তা দীর্ঘদিন খাওয়া। এজন্য একসঙ্গে বেশি করে মুরগির মাংস কিনে ফিজে রেখে খান অনেকেই।

তবে ঠিক কতদিন ফ্রিজে কাঁচা বা রান্না করা মুরগির মাংস রাখা উচিত সে সম্পর্কে কি কারও কোনো ধারণা আছে? চলুন জেনে নেওয়া যাক এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা কী বলছেন-

এ বিষয়ে ভারতের এক বিশিষ্ট পুষ্টিবিদ কোয়েল পাল চৌধুরি জানিয়েছেন, মুরগির মাংস হলো উৎকৃষ্ট প্রোটিনের ভাণ্ডার। তাই নিয়মিত এই মাংস খেলে অনায়াসে দেহে এই ম্যাক্রো নিউট্রিয়েন্টের ঘাটতি মিটিয়ে ফেলতে পারবেন।

শুধু তাই নয়, এতে আরও আছে ভিটামিন বি ১২, ট্রিপটোফ্যান, কোলিন, জিংক, আয়রন, কপারসহ একাধিক জরুরি উপাদান। আর এসব উপাদান দেহের সার্বিক স্বাস্থ্যের খেয়াল রাখে। তাই সুস্থ-সবল জীবন কাটাতে চাইলে নিয়মিত চিকেন খেতেই হবে।

ফ্রিজে কাঁচা মুরগির মাংস কতদিন রাখা উচিত?

এ বিষয়ে কোয়েল পাল চৌধুরি জানান, বাজার থেকে কিনে আনার পর ৪-৫ দিন ফ্রিজে চিকেন রাখতেই পারেন। তাই বলে মাসের পর মাস রেখে খাওয়া যাবে না।

এমন ভুলের কারণে শরীরে বাসা বাঁধতে পারে একাধিক রোগজীবাণু। আর এসব জীবাণু পেটে গেলে হতে পারে ডায়রিয়া, বমি, বদহজমের মতো সমস্যা।

রান্না করা মাংসও বেশিদিন রাখা যাবে না

অনেকেই একবার চিকেন রান্না করে পুরো সপ্তাহ জুড়ে খান। তবে এমন ভুল করলে বড়সড় বিপদের মুখে পড়তে হবে বলে সতর্ক করলেন কোয়েল। তার মতে, রান্না করা চিকেন ১-২ দিনের বেশি ফ্রিজে রাখলেই তা নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

আর এমন চিকেন খেলে যে একাধিক রোগব্যাধি পিছু নেওয়ার ঝুঁকি বাড়বে, তা অনুমান করতে পারছেন নিশ্চয়ই। তাই এবার থেকে চিকেন রান্না করার ১-২ দিনের মধ্যে তা খেয়ে ফেলুন। এই নিয়ম মেনে চললেই সুস্থ থাকতে পারবেন।

কীভাবে রাখবেন?

বাজার থেকে কিনে আনার পর চিকেন ভালো করে ধুয়ে নিন। তারপর একটি পরিষ্কার পাত্রে মুরগির মাংস রেখে তা ডিপ ফ্রিজে ঢুকিয়ে দিতে হবে। এই কাজ করলেই মাংস ৫-৬ দিন ভালো থাকবে।

আর রান্না করা মাংস ডিপ ফ্রিজের নিচের দিকে ঠান্ডা জায়গায় রাখার চেষ্টা করুন। তাহলেই এর পুষ্টিগুণ বজায় থাকবে। না হলে কম সময়ের মধ্যেই মাংস খারাপ হয়ে যেতে পারে।

সূত্র: এই সময়

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network